Saturday, November 4, 2017

ফরেক্স কি?






আসুন আজকে আমরা ফরেক্স কি এটা নিয়ে কিছু আলচনা করি।

forex
আমরা সবাই জানি ফরেক্স কি।তার পরেও ধারাবাহিকতা রক্ষায় এবং কিছু নতুনত্ব নিয়ে আপনাদের সামনে উপস্থাপন করলাম আজকের পরিবেশনা।

ফরেক্স হল একটা ভারসুয়াল মার্কেট প্লেস।এখানে মানুষ তার মেধা দারা এবং মানুষিক পরিশ্রমের মাধ্যমে আয় করার চেষ্টা করে।ফরেক্স যদি কেউ করতে আগ্রহী হন তবে আপনাকে খুব ভালভাবে জানতে হবে.. ফরেক্স কি?ফরেক্স থেকে কিভাবে সফল হওয়া যায়।
ফরেক্স মার্কেট এর অনেক নাম আছে।যেমন  fx, forex,foreign exchange, কারেন্সি এক্সচেঞ্জ, মুদ্রা বাজার, বাই সেল মার্কেট সহ আরো কিছু নাম আছে।

ফরেক্স মূলত বহু বছর আগে জাপান ও গ্রীকরা শুরু করেছিল। তখন যদিও ইন্টারনেট ছিল না,তবুও তারা ভিন্ন ভাবে ফরেক্স এর চরচা করতেন।পন্যের বিনিময় পন্য বা কাপড় অথবা খাদ্য অথবা কোন ধাতব ইত্যাদি ছিল তখন কার কারেন্সি। আধুনিক যুগের সূচনা তথা ১৯৭০ এর দিকে ফরেক্স তার আধুনিক রূপ পায়।ইন্টারনেট আবিষ্কার এর ফলে এটা একদেশ থেকে অন্যদেশে ছড়িয়ে পড়ে।কিন্তু এটা সীমাবদ্ধ ছিল উন্নত দেশ গুলির বড় বড় ব্যাংক ও প্রতিষ্ঠানের মধ্যে।কোন একসময় তা সকল দেশের কোম্পানি ও ব্যাক্তি বিশেষ এর মাঝে সীমাবদ্ধ রয়ে যায়।ফরেক্স এত বেশি সম্ভাবনাময় ছিল যে তা খুব দ্রুত সাধারণ মানুষের মাঝে বিস্তার লাভ করে।

এখানে কেউ প্রফিট নিয়ে অনেক ভালভাবে জীবন যাপন করে আবার কেউ সব হারিয়ে নিঃশেষ হয়ে যায়।বহু আত্নহত্যার ও নজির আছে।তবে মানুষ লস করে তার নিজের ইমশনের কারনে।এক সমীক্ষায় দেখা যায় ওয়াল্ড এর 95% ফরেক্স ট্রেডার লুজার।আর যদি বাংলাদেশের কথা চিন্তা করেন তবে 99.02% ট্রেডার লুজার।তাই সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে নেগেটিভ সাইড গুলি নিয়ে ভাল করে চিন্তা করে দেখবেন।

ফরেক্স এ যদি আপনি অংশগ্রহণ করে টাকা উপার্জন করতে ইচ্ছা পোষণ করে থাকেন তবে আপনার কয়েকটি প্রয়জনিয় বস্তু দরকার হবে।

১। ল্যাপটপ বা ডেক্সটপ অথবা ট্যাব/প্যাড
২। ইন্টারনেট সংযোগ
৩। ভাল একজন শিক্ষক
৪। ডিপোজিট করার মত অর্থ

জানি আপনি সব ম্যানেজ করতে পারবেন।কিন্তু বাংলাদেশে একটা জিনিসের খুব অভাব আর সেটা হল প্রফিটেবল টিচার্স। যার শিখায় তারা ৮৫% ট্রেইনার লুজার।কারন যে সফল হয় সে শেখানোর সময় পায় না এবং ইচ্ছা ও থাকে না।

ফরেক্স মার্কেট এ মূলত একদেশের মুদ্রার বিপরীত এ অন্য দেশের মুদ্রা কেনা বেচা হয়।উদাহরণ সরূপ ধরেন আপনার কাছে 100$ আছে।এখন আপনি তা দিয়ে জাপানের ইয়েন ক্রয় করলেন।কিছুদিন বা কিছু সময় পরে যখন usd jpy এর বিপরীতে স্ট্রং পজিশন ক্রিয়েট করবে তখন আপনি চাইলে ক্লোজ করে নিতে পারেন।এর মাঝে আপনার প্রফিট হবে।আবার অনেক সময় লস ও হতে পারে।ফরেক্স এ সুবিধা হল বাই ও সেল দুইটা করা যায়।তাই বুঝে শুনে কাজ করলে লস কম হবে।
এইভাবে বিভিন্ন দেশের মুদ্রা দিয়ে ব্যাবসা করে আয় করা যায়।

পরবর্তী তে আমরা জানব...

১। কারেন্সি কি?
২। পিপস কি?
৩। ব্রকার কি?

যারা ইতিমধ্যে কাজ শুরু করেছেন কিন্তু ভাল ব্রকার খুজে পাচ্ছেন না তারা এবং যারা শুরু করতে চাইছেন।তারা নিচের এই লিংকে ক্লিক করে একাউন্ট নিতে পারেন।







No comments:

Post a Comment

Thanks Bro