Breaking News

হযরত উসমান রা আনহু কবরের কাছে গিয়ে খুব কাদতেন | Bangla Mail 21







হযরত উসমান রা আনহু কবরের কাছে গিয়ে খুব কাদতেন। সাহাবায়ে একেরাম প্রশ্ন করেছেন হুজুর রাসুলে কারীম (সাঃ) যখন জান্নাত ও জাহান্নামের ওয়াজ করেন তখনো তো এতো বেসি আপনি কাদেন না যত বেশি কাদেন কবরের পাশে এসে কাদেন। হযরত উসমান (রা) আনহু বলতেন আমার সাথীরা আমি আমার হাবিবের কাছে আল্লাহ রব্বুল আলামিনের কাছে বলতে শুনেছি এই কবরটাই হলো প্রথম ষ্টেশন এই কবরটাই হলো প্রথম ইমিগ্রেসন কাউন্টার। এই জায়গায় কেউ যদি ধরা পড়ে যাই কারো যদি চার্জশিট হয়ে যাই সব জায়গায় ধরা পড়ে যাবে হাসরে মিজানে সিরাতে কোনো জায়গাই নাজাত পাবেনা। আর এই কবরটা যদি কেউ মুক্তি পেয়ে যাই মিজান সিরাত হাসর সব জাৃযগা থেকে আল্লাহ তারে ভালোভাবে পার করে দিবেন। এটা হলো আসল জায়গা মারাত্মক জায়গা। কবরের ভেতরে মানুষ যখনি রাখা হবে সঙ্গে সঙ্গে দুইজন ফেরেশতা আসবে। কবরের কাছে যারা এসেছিলো দাফন হয়ে যাওয়ার পর এই মানুষগুলি চল্লিশ কদম যেতে যতখন লাগে এর মধ্য দুইজন ফেরেশতা এসে যাবে। এসে জিঙ্গেস করবে মান রব্বুকা ওমান দিনুকা ওয়ামান ন্যাবিয়্যুকা। তোমার রব কে। তোমার দিন কি। তোমার নবি কে। যদি এই ব্যাক্তি বেইমান হয় মুনাফিক হয় সে বলবে হায় হাতা লাদরি হায় হাতা লাদরি আমার রব কে আমি জানিনা। তোমার দিন কি? দিন কারে কয় বুঝিনা। এর পরে আল্লাহর নবি জনাবে মুহাম্মাদুর রাসুলুল্লাহ (সাঃ) কে দেখানো হবে বলা হবে এই ব্যাক্তি সম্পর্কে তোমার ধারনা কি ইনি কে। সে বলবে আমি চিনিনা। নাউজুবিল্লাহ ব্যাস এর পরে তার যা হওয়ার তাই শুরু হয়ে যাবে আর যদি বান্দটা মুমিন হয় প্রশ্ন করা হবে মান রব্বুকা। সে জবাব দিবে রব্বি আল্লাহ। আমার রব আল্লাহ রব্বুল আলামিন। ওয়ামা দিনুকা। তোমার দিন কি সে বলবে দিনুনা ইসলাম।আমার দিন হচ্ছে ইসলাম এরপরে আল্লাহর নবিকে দেখানো হবে কয়েক রকমের বর্ননা আছে কোনো বর্ননায় আছে হুজুরের আকারে দেখানো হবে অথবা রাসুল কে সরাসরি দেখানো হবে। বলাহবে এই লোকটি সম্পরকে তোমার ধারনা কি? মুমিন ব্যাক্তি বলবে হাদা সাবিয়্যুনা মুহাম্মাদুর রাসুলুল্লাহ (সাঃ) ইনি আমার তো সেই নবি মুহাম্মাদুর রাসুলুল্লাহ (সাঃ)। জবাব হয়ে যাওয়ার পর গায়েব থেকে আওয়জ আসবে ও আমার ফেরেশতারা আমার এই বান্দাকে জান্নাতের পোশাক পড়াইয়া দাও। আর তার কবর টাকে জান্নাতের বিছানা বিছাইয়া দাও। জান্নাতের পোশাক পড়াইযা দাও। তার চোখের দৃষ্টি যতদূর যাই কবরটা ততটা প্রসস্ত করে দাও। বেহেশতের পোশাক পড়িয়ে বেহেশতের বিছানা বিছাইয়া ফেরেশতা বলবে ঘুমিয়ে যাও। কিয়ামত পযন্ত ঘুমাইয়া থাকো। এরপরে সিঙ্গায় ফুৎকার হবে এর আওয়াজে তার ঘুম ভেঙে যাবে বলবে হায় আপসোস আমার এত আরামের ঘুম থেকে কে আমাকে জাগ্রত করলো। আমার ঘুমটারে নষ্ট করলো কে। আওয়াজ আসবে এটা হচ্ছে রহমানের সেই ওয়াদা আর মুরসালিনরা নবিরা সত্য কথাই বলেছিলেন সেই কেয়ামত অনুষ্ঠিত হচ্ছে। দুনিয়াকে যারা অগ্রাধিকার দিবে পরকালের তুলনায় জবাব দিতে পারবে না কবরের ভেতরে গিয়ে।আর যারা পরকালকে অগ্রাধিকার দিবে আল্লাহকে ভয় করবে ইমানদার হয়ে আমল নিয়ে কবরে যাবে কেয়ামতের দিন আল্লাহ রব্বুল আলামিন তাদের জান্নাত দান করবেন। নবি বলেন মানুষের পেট সাড়ে তিন হাট মাটিছাড়া কবরের মাটি ছাড়া মানুষের পেট ভরবেনা। আল্লাহপাক বলছেন কেয়ামতের দিন তার এ জমিন এই জমিনের ভেতরে যা লুক্কায়িত ছিলো সব বের করে দিবে। এ মাটির ভেতরে যা আছে কেয়ামতের দিন সব বের করে দিবে। এ জমিনকে ঝাকি মারা হবে প্রবাল এক ঝাকুনি প্রবাল এক ঝাকুনিতে এ পৃথিবীর মধ্য যা কিছু আছে সব বেড় হয়ে যাবে। মানুষ হয়রান হয়ে বলবে পৃথিবীর কি হয়েছে এ মাটির হলোটা কি। আল্লাহ রব্বুল আলামিন বলেন জমিনের উপরে যা ঘটেছে জমিন তা সব বের করে দিবে সব প্রকাশ করে দিবে। আর এগুলো এজন্য হবে যেহেতু তার রবের হুকুম হৃযেছে। আকাশ কিতাবের পৃষ্ঠার মত একটার উপরে আরেকটা ঠাস ঠাস করে ভেঙে পড়বে। পাহার গুলিকে উড়িয়ে দেওয়া হবে জমিনের ভেতরে যা আছে সব উপরে চলে আসবে । পৃথিািটা সব শেষ কিচ্ছু নেই আকাশ নেই পাহাড় নেই সমুদ্র নেই সব একাকার হয়ে যাবে। যন্দ্র নাই সূর্য নাই তারকা নাই। তারকাগুলি একটা আরেকটা থেকে বিকখিপতো হয়ে পড়বে।। চন্দ্র আর সূর্যের মধ্য সংঘর্ষ বাধিয়ে দেওয়া হবে। ফেরেশতাদের কে মরে যেতে বলা হবে। সকলের মউত হয়ে যাবে কেউ আর থাকবেনা এমনকি হযরত এ আযরাইল তিনিও থাকবেননা। সব আল্লাহ মৃত্যু করে দিবেন। এরপরে আল্লাহ রব্বুল আলামিন একা তিনি বলবেন ইয়া দুনিয়া ইয়া দুনিয়া আয়না আনহাররুপি। হে পৃথিবী তোর সেই সুমুদ্রগুলি কোথায় নদিগুলো কোথায়। হে দুনিয়া তোমার গাছগুলি কোথায় এত বনবনানি এত গাছ ছিলো হে পৃথিবী তোর জমিনে যত পাহার ছিলো পাহার গুলি কই। যত সৈরাচার ছিলো জমিনের উপরে যারা নোংরা মনোবৃত্তি নিয়ে মানুষ ধ্বংস করেছে মায়ের বুক খালি করেছে ওই সৈরাচার গুলি কই। কোনো জবাব নেই। আল্লাহপাক এর পরে বলবেন।। কার রাজত্ব আজা। আজকে রাজত্ব টা কার আল্লাহ তিনবার আওয়াজ দিবেন আজকের রাজত্বটা কার। আল্লাহপাক যখন তিনবার করে ডাক দিবেন কোনো জবাব নাই কে জবাব দিবে আল্লাহ রব্বুল আলামিনের কাছে কার খমতা আছে কথা বলার কেউ তো নাই সব সেষ। আল্লাহ পাক বলবেন একমাএ পরক্রমশালিন আল্লাহ রব্বুল আলামিনের রাজত্ব আজ।।। এখনো সময় আছে সষ্ট্রাকে চেনার চেষ্টা করো ভালো করে।।




No comments

Thanks Bro